সব্জির দাম স্বাভাবিক, কাচা বাজার ঘুরে প্রতিবেদক।

শেয়ার করতে নিচের বাটনে ক্লিক করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাজশাহীর বাজারে সকল কাঁচা সবজির বাজারের দাম স্থিতিশীল রয়েছে। ঈদের পর অন্যান্য সবজির সাথে স্বাভাবিক রয়েছে মাছ-মাংসের দামও। নিত্যপন্যের দাম স্বাভাবিক থাকায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ক্রেতারা। সকালে নগরীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এ তথ্য জানা গেছে।

নগরীর নিউ মার্কেট, উপশহর নিউমার্কেট এবং সাহেব বাজারের কাচা বাজার ঘুরে দেখা যায়, প্রতিকেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ২২ থেকে ২৫ টাকা দরে। পটল প্রতিকেজি ২৫ থেকে ৩০ টাকা,কোরল্লা ৪০টাকা,বেগুন ৩০ থেকে ৪০টাকা, ঢেড়স ৩০ টাকা,বরবটি ৪০ টাকা, কাকরোল ৫০ থেকে ১২০টাকা দরে,চিচিঙ্গা ৩০টাকা, কচু ৫০ থেকে ৬০ টাকা,সজিনা ৮০ থেকে ১০০ টাকা,পেপে ২৫ থেকে ৩০ টাকা,মুলা ৪০ থেকে ৫০ টাকা,লাউ প্রতিপিচ ২০ থেকে ২৫ টাকা, মিষ্টিকুমড়া ৩০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া কাঠুয়া ডাটা ১০ থেকে ১৫ টাকা,গাজর ৫০টাকা,টমেটো ১২০ থেকে ১৬০ টাকা,পাতাকপি প্রতিপিচ ৩০ টাকা, কাঁচামরিচ প্রতিকেজি ৪০ টাকা দেশি পেয়াজ প্রতিকেজি ৪০ থেকে ৪৫ টাকা,ইন্ডিয়ান পেয়াজ ২০ থেকে ২৫ টাকা, রসুন ৮০ টাকা,আদা ৯০ টাকা,ক্যাপসিক্যাপ ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা,লেবু হালি ১২ থেকে ১৫ টাকা

শাক ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম জানান, বর্তমানে প্রতিকেজি পুইশাক বিক্রয় হচ্ছে ১০ টাকায়, সবুজশাক ১০ টাকা,কলমিশাক প্রতিকেজি ১০টাকা, পাটেরশাক আটি প্রতি ১৫ থেকে ২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

মুদি ব্যবসায়ী বিনা প্রসাদ গুপ্ত জানান, নতুন চালের বাজার স্থিতিশিল রয়েছে স্থিতিশীল থেকে বিক্রিহচ্ছে । বর্রাতমানে জিরাশাইল চাউল বিক্রয় হচ্ছে প্রতিকেজি ৫০ টাকা দরে। এছাড়া আটাশ চাউল ৪৫ টাকা,মিনিকেট ৫৫ থেকে ৬০ টাকা,নাজির শাইল ৬০ টাকা,বাসমতি ৭০ টাকা,গুটিশরনা ৪০ থেকে ৪২ টাকা, পারিজা ৪৫ টাকা, কালজিরা আতব ৮৫ টাকা,চিনিগুড়া আতব ৯০ টাকা, কাটারী আতব ৬০ টাকা, পাইজাম আতব ৫০ টাকা দরে বিক্রিহচ্ছে।

মাছ ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলাম জানান, বর্তমানে প্রতিকেজি ছোট ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ৮০০ থেকে ৯০০ টাকায়, বড় ইলিশ ১২০০ থেকে ১৫০০ টাকা,গলদা ৮০০ থেকে ১০০০ টাকা,টেংরা ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা, বিদেশি কৈ ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা,গুচি মাছ ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা,পিউলি মাছ ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা, বাইম মাছ ৭০০ টাকা,পবামাছ ৪৫০ থেকে ৫০০ টাকা দরে। এছাড়াও পাঙ্গাস ৮০ থেকে ১২০ টাকা, দেশি মাগুর ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা,মৃগেল ১২০ থেকে ১৬০ টাকা,সিলভার কার্প (বড়) ২২০ থেকে ২৬০ টাকা, সিলভার কার্প (ছোট) ১২০ থেকে ১৫০ টাকা,কাতল ২৩০ থেকে ৩৫০ টাকা, রুইমাছ ২২০ থেকে ৩০০ টাকা দরে বিক্রিহচ্ছে।

অপরিবর্তিত রয়েছে মাংসের দর। বর্বতমানে প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৪৫ টাকায়,সোনালী ২৪০ থেকে ২৫০ টাকা,লেয়ার ১৬০ থেকে ১৭০ টাকা,দেশি মুরগী ৩৯০ টাকা, পাতিহাস ২০০ থেকে২৩০টাকা । গরুর মাংস ৪৫০ টাকা,খাশির মাংস ৭০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে ।

Next Post

সিটি নির্বাচনে আওয়ামীলীগ এর মনোনয়ন পেলেন যারা।

শুক্র জুন ২২ , ২০১৮
শেয়ার করতে নিচের বাটনে ক্লিক করুনরাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে খায়রুজ্জামান লিটন, সিলেটে বদরুদ্দিন আহমদ কামরান, বরিশালে সাদিক আবদুল্লাহকে মেয়র পদে মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ। আজ শুক্রবার গণভবনে দলের স্থানীয় সরকার ও সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভায় এই মনোনয়ন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন। […]

এই রকম আরও খবর

Chief Editor

Johny Watshon

Lorem ipsum dolor sit amet, consectetur adipiscing elit, sed do eiusmod tempor incididunt ut labore et dolore magna aliqua. Ut enim ad minim veniam, quis nostrud exercitation ullamco laboris nisi ut aliquip ex ea commodo consequat. Duis aute irure dolor in reprehenderit in voluptate velit esse cillum dolore eu fugiat nulla pariatur

Quick Links